সপ্তাহ অনুযায়ী ভ্রূণের ওজন ও উচ্চতার চার্ট


মাতৃগর্ভে একেক শিশুর বৃদ্ধি একেক রকম হয়ে থাকে। মায়ের খাবার রুচি, স্বাস্থ্য সবকিছুর উপরে ভ্রূণের ওজন ও শারীরিক ও মানসিক বিকাশ নির্ভর করে। তবে অধিকাংশ গবেষণা ও পর্যবেক্ষণের ভিত্তিতে মায়ের গর্ভে সপ্তাহ ভিত্তিক শিশুর বৃদ্ধি ও বিকাশের একটি চার্ট তৈরী করা হয়েছে। এ থেকে মায়েরা সহজেই জানতে পারবেন গর্ভস্থ শিশুর ওজন ও বৃদ্ধি কত সপ্তাহে কত হওয়া উচিত। এতে আল্ট্রাসনোগ্রামের রিপোর্টে শিশুর যে ওজন ও উচ্চতা আসবে তার সাথে চার্টে দেয়া মানের তুলনা করলে মা বুঝতে পারবেন তার সন্তানের ওজন ও বৃদ্ধি সঠিকভাবে হচ্ছে কি না।

এর মাধ্যমে কোনো কারণে শিশুর ওজন তুলনামুলকভাবে কম থাকলে মায়ের খাবারের পরিমাণ বাড়িয়ে বা যেসব খাবার খেলে শিশুর বৃদ্ধি বেশি হয় সেসব খাবার খেয়ে তথা শিশুর ওজন বৃদ্ধি করার জন্য প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণ করা সহজ হবে। তবে এটাও মনে রাখতে হবে যে, এটি পর্যবেক্ষণের ভিত্তিতে তৈরিকৃত একটি চার্ট। কোনো কারণে শিশুর ওজন ও উচ্চতা চার্টের চেয়ে সামান্য বেশি বা কম হলে দুশ্চিন্তা করার কো্নো কারণ নেই।
ভ্রূণের বয়স প্রায় ২০ সপ্তাহ পর্যন্ত ভ্রূণের মাথার উপরিভাগ থেকে নিচ পর্যন্ত মাপকে উচ্চতা হিসেবে ধরা হয়। এ সময় পর্যন্ত ভ্রূণের শরীর পেঁচানো থাকে বলে সঠিকভাবে উচ্চতা নির্ণয় করতে অসুবিধা হয়। তবে এর পর থেকে শিশুর মাথার শীর্ষ থেকে পায়ের পাতা পর্যন্ত মাপ নিতে সমস্যা হয় না।

সপ্তাহ অনুযায়ী ভ্রূণের ওজন ও উচ্চতার চার্ট

ভ্রূণের বয়স উচ্চতা (ইঞ্চি) ওজন

(আউন্স/পাউন্ড)

উচ্চতা (সে. মি.) ওজন (গ্রাম)
(মাথার শীর্ষ থেকে নিচ্ বা পশ্চাৎভাগ পর্যন্ত) (মাথার শীর্ষ থেকে নিচ্ বা পশ্চাৎভাগ পর্যন্ত)
সপ্তাহ ০.৬৩ ইঞ্চি ০.০৪ আউন্স ১.৬ সে. মি. ১ গ্রাম
সপ্তাহ ০.৯০ ইঞ্চি ০.০৭ আউন্স ২.৩ সে. মি. ২ গ্রাম
১০ সপ্তাহ ১.২২ ইঞ্চি ০.১৪ আউন্স ৩.১ সে. মি. ৪ গ্রাম
১১ সপ্তাহ ১.৬১ ইঞ্চি ০.২৫ আউন্স ৪.১ সে. মি. ৭ গ্রাম
১২ সপ্তাহ ২.১৩ ইঞ্চি ০.৪৯ আউন্স ৫.৪ সে. মি. ১৪ গ্রাম
১৩ সপ্তাহ ২.৯১ ইঞ্চি ০.৮১ আউন্স ৭.৪ সে. মি. ২৩ গ্রাম
১৪ সপ্তাহ ৩.৪২ ইঞ্চি ১.৫২ আউন্স ৮.৭ সে. মি. ৪৩ গ্রাম
১৫ সপ্তাহ ৩.৯৮ ইঞ্চি ২.৪৭ আউন্স ১০.১ সে. মি. ৭০ গ্রাম
১৬ সপ্তাহ ৪.৫৭ ইঞ্চি ৩.৫৩ আউন্স ১১.৬ সে. মি. ১০০ গ্রাম
১৭ সপ্তাহ ৫.১২ ইঞ্চি ৪.৯৪ আউন্স ১৩ সে. মি. ১৪০ গ্রাম
১৮ সপ্তাহ ৫.৫৯ ইঞ্চি ৬.৭০ আউন্স ১৪.২ সে. মি. ১৯০ গ্রাম
১৯ সপ্তাহ ৬.০২ ইঞ্চি ৮.৪৭ আউন্স ১৫.৩ সে. মি. ২৪০ গ্রাম
২০ সপ্তাহ ৬.৪৬ ইঞ্চি ১০.৫৮ আউন্স ১৬.৪ সে. মি. ৩০০ গ্রাম
  (মাথার শীর্ষ থেকে পা পর্যন্ত) (মাথার শীর্ষ থেকে পা পর্যন্ত)
২০ সপ্তাহ ১০.০৮ ইঞ্চি ১০.৫৮ আউন্স ২৫.৬ সে. মি. ৩০০ গ্রাম
২১ সপ্তাহ ১০.৫১ ইঞ্চি ১২.৭০ আউন্স ২৬.৭ সে. মি. ৩৬০ গ্রাম
২২ সপ্তাহ ১০.৯৪ ইঞ্চি ১৫.১৭ আউন্স ২৭.৮ সে. মি. ৪৩০ গ্রাম
২৩ সপ্তাহ ১১.৩৮ ইঞ্চি ১.১০ পাউন্ড ২৮.৯ সে. মি. ৫০১ গ্রাম
২৪ সপ্তাহ ১১.৮১ ইঞ্চি ১.৩২ পাউন্ড ৩০ সে. মি. ৬০০ গ্রাম
২৫ সপ্তাহ ১৩.৬২ ইঞ্চি ১.৪৬ পাউন্ড ৩৪.৬ সে. মি. ৬৬০ গ্রাম
২৬ সপ্তাহ ১৪.০২ ইঞ্চি ১.৬৮ পাউন্ড ৩৫.৬ সে. মি. ৭৬০ গ্রাম
২৭ সপ্তাহ ১৪.৪১ ইঞ্চি ১.৯৩ পাউন্ড ৩৬.৬ সে. মি. ৮৭৫ গ্রাম
২৮ সপ্তাহ ১৪.৮০ ইঞ্চি ২.২২ পাউন্ড ৩৭.৬ সে. মি. ১০০৫ গ্রাম
২৯ সপ্তাহ ১৫.২ ইঞ্চি ২.৫৪ পাউন্ড ৩৮.৬ সে. মি. ১১৫৩ গ্রাম
৩০ সপ্তাহ ১৫.৭১ ইঞ্চি ২.৯১ পাউন্ড ৩৯.৯ সে. মি. ১৩১৯ গ্রাম
৩১ সপ্তাহ ১৬.১৮ ইঞ্চি ৩.৩১ পাউন্ড ৪১.১ সে. মি. ১৫০২ গ্রাম
৩২ সপ্তাহ ১৬.৬৯ ইঞ্চি ৩.৭৫ পাউন্ড ৪২.৪ সে. মি. ১৭০২ গ্রাম
৩৩ সপ্তাহ ১৭.২০ ইঞ্চি ৪.২৩ পাউন্ড ৪৩.৭ সে. মি. ১৯১৮ গ্রাম
৩৪ সপ্তাহ ১৭.৭২ ইঞ্চি ৪.৭৩ পাউন্ড ৪৫ সে. মি. ২১৪৬ গ্রাম
৩৫ সপ্তাহ ১৮.১৯ ইঞ্চি ৫.২৫ পাউন্ড ৪৬.২ সে. মি. ২৩৮৩ গ্রাম
৩৬ সপ্তাহ ১৮.৬৬ ইঞ্চি ৫.৭৮ পাউন্ড ৪৭.৪ সে. মি. ২৬২২ গ্রাম
৩৭ সপ্তাহ ১৯.১৩ ইঞ্চি ৬.৩০ পাউন্ড ৪৮.৬ সে. মি. ২৮৫৯ গ্রাম
৩৮ সপ্তাহ ১৯.৬১ ইঞ্চি ৬.৮০ পাউন্ড ৪৯.৮ সে. মি. ৩০৮৩ গ্রাম
৩৯ সপ্তাহ ১৯.৯৬ ইঞ্চি ৭.২৫ পাউন্ড ৫০.৭ সে. মি. ৩২৮৮ গ্রাম
৪০ সপ্তাহ ২০.১৬ ইঞ্চি ৭.৬৩ পাউন্ড ৫১.২ সে. মি. ৩৪৬২ গ্রাম
৪১ সপ্তাহ ২০.৩৫ ইঞ্চি ৭.৯৩ পাউন্ড ৫১.৭ সে. মি. ৩৫৯৭ গ্রাম
৪২ সপ্তাহ ২০.২৮ ইঞ্চি ৮.১২ পাউন্ড ৫১.৫ সে. মি. ৩৬৮৫ গ্রাম

 

ছবিসূত্রঃ Pregnancy Health
ছবিসূত্রঃ PregMed.org
ছবিসূত্রঃ PregMed.org

মনে রাখতে হবে যে, শিশুর ওজন ও উচ্চতার সঠিক বৃদ্ধি শিশুর সুস্থতার লক্ষণ। তাই গর্ভাবস্থায়ও শিশুর শারীরিক বিকাশ ঠিকমতো হচ্ছে কিনা অর্থ্যাৎ ভ্রূণস্থ শিশুর বয়স এর বয়স অনুযায়ী ঠিকাছে কি না সেদিকে খেয়াল রাখাও মা-বাবার দায়িত্ব। সেই সাথে গর্ভবতী মায়ের খাবারের প্রতি যত্ন রাখাও পরিবারের সকলের দায়িত্ব।

ছবিসূত্রঃ Wealth & Healthy Diary – Blogger

কম ওজনের শিশুর রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতাও কম হয় এবং সাথে থাকতে পারে নানা রকম শারীরিক জটিলতা। তাই মায়ের প্রতিদিনকার খাবারে যেন পর্যাপ্ত পরিমাণ প্রোটিন, কার্বোহাইড্রেট, স্নেহ, ভিটামিন ও মিনারেলস থাকে সে ব্যাপারে সচেতন থাকতে হবে।

Comments 0

Your email address will not be published. Required fields are marked *

You may also like

More From: গর্ভবতী মায়ের যত্ন

DON'T MISS